বিপিএলের ষষ্ঠ আসরে কে কোন দলে

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের পর্দা উঠবে আগামী বছরের জানুয়ারিতে। তার আগে ২৮ অক্টোবর, রবিবার রাজধানীর পাঁচ তারকা হোটেল র‍্যাডিসন ব্লুতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফট।

প্লেয়ার ড্রাফট শেষে এক নজরে দেখে নেওয়া যাক বিপিএলের ষষ্ঠ আসরের সাত দল।

ঢাকা ডায়নামাইটস 

দেশি: সাকিব আল হাসান (আইকন), রুবেল হোসেন (ক্যাটাগরি এ), নুরুল হাসান সোহান (ক্যাটাগরি বি), রনি তালুকদার (ক্যাটাগরি সি), শুভাগত হোম (ক্যাটাগরি বি), কাজী অনিক (ক্যাটাগরি ই), মিজানুর রহমান (ক্যাটাগরি ডি), আসিফ হাসান, বাঁহাতি স্পিনার (ক্যাটাগরি সি), শাহাদাত হোসেন রাজিব (ক্যাটাগরি বি), নাইম শেখ (ক্যাটাগরি ই)।

বিদেশি: সুনিল নারাইন (উইন্ডিজ), রভম্যান পাওয়েল (উইন্ডিজ), কাইরন পোলার্ড (উইন্ডিজ), আন্দ্রে রাসেল (উইন্ডিজ), হযরতউল্লাহ জাজাই (আফগানিস্তান), অ্যান্ড্রু বিরচ (দক্ষিণ আফ্রিকা, ক্যাটাগরি ই), ইয়ান বেল (ইংল্যান্ড, ক্যাটাগরি ডি)।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস

দেশি: তামিম ইকবাল (আইকন), ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার রনি (ক্যাটাগরি এ), আনামুল হক বিজয় (ক্যাটাগরি এ), মেহেদি হাসান (ক্যাটাগরি বি), জিয়াউর রহমান (ক্যাটাগরি সি), মোশাররফ রুবেল (ক্যাটাগরি সি), মোহাম্মদ শহীদ (ক্যাটাগরি সি), শামসুর রহমান (ক্যাটাগরি সি), সঞ্জিত সাহা (ক্যাটাগরি ডি)।

বিদেশি: শোয়েব মালিক (পাকিস্তান), আসেলা গুনারত্নে (শ্রীলঙ্কা), লিয়াম ডসন (ইংল্যান্ড), শহিদ আফ্রিদি (পাকিস্তান, ক্যাটাগরি এ প্লাস), থিসারা পেরেরা (শ্রীলঙ্কা, ক্যাটাগরি এ), এভিন লুইস (উইন্ডিজ, ক্যাটাগরি এ প্লাস), ওয়াকার সালমা খেল (আফগানিস্তান), আমির ইয়াসিম (পাকিস্তান)।

সিলেট সিক্সার্স

দেশি: লিটন দাস (আইকন), সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, আফিফ হোসেন (ক্যাটাগরি বি), তাসকিন আহমেদ (ক্যাটাগরি বি), আল আমিন হোসেন (ক্যাটাগরি সি), তৌহিদ হৃদয় (ক্যাটাগরি ই), নাবিল সামাদ (ক্যাটাগরি সি), এবাদত হোসেন (ক্যাটাগর ডি), অলক কাপালি (ক্যাটাগরি সি),  জাকির আলি অনিক (ক্যাটাগরি সি), মেহেদি হাসান রানা (ক্যাটাগরি সি)।

বিদেশি: সোহেল তানভীর (পাকিস্তান), ডেভিড ওয়ার্নার (অস্ট্রেলিয়া), সন্দ্বীপ লামিচানে (নেপাল) ফ্যাভিয়ান অ্যালেন (উইন্ডিজ, ক্যাটাগরি ই), মোহাম্মদ ইরফান (পাকিস্তান, ক্যাটাগরি সি),  গুলবদিন নাইম (আফগানিস্তান, ক্যাটাগরি ডি), আন্দ্রে ফ্লেচার (উইন্ডিজ), নিকলাস পুরান (উইন্ডিজ)।

রংপুর রাইডার্স

দেশি: মাশরাফি বিন মুর্তজা (আইকন), নাজমুল ইসলাম অপু, মোহাম্মদ মিথুন, শফিউল ইসলাম (ক্যাটাগরি এ), সোহাগ গাজি (ক্যাটাগরি সি), ফরহাদ রেজা (ক্যাটাগরি বি), মেহেদি মারুফ (ক্যাটাগরি সি), নাহিদুল ইসলাম (ক্যাটাগরি ডি), নাদিফ চৌধুরী (ক্যাটাগরি সি), আবুল হাসান রাজু (ক্যাটাগরি বি), ফারদিন হোসেন অনিক (ক্যাটাগরি ই)।

বিদেশ: ক্রিস গেইল, এবি ডি ভিলিয়ার্স, আলেক্স হেলস (ইংল্যান্ড),  রবি বোপারা (ইংল্যান্ড, ক্যাটাগরি বি), রিলি রুশ (দক্ষিণ আফ্রিকা, ক্যাটাগরি বি), বেনি হাওয়েল (ইংল্যান্ড, ক্যাটাগরি ডি), ওশানে থমাস (উইন্ডিজ)।

খুলনা টাইটান্স

দেশি: মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (আইকন), নাজমুল হোসেন শান্ত, আরিফুল হক, জহুরুল ইসলাম (ক্যাটাগরি বি), শরিফুল ইসলাম (ক্যাটাগরি ই), তাইজুল ইসলাম (ক্যাটাগরি বি), মোহাম্মদ আল আমিন (ক্যাটাগরি বি), শুভাশিষ রয়, জুনায়েদ সিদ্দিকী, শুভাশিস রয় (ক্যাটাগরি বি), জুনায়েদ সিদ্দিকি (ক্যাটাগরি সি), তানভির ইসলাম (ক্যাটাগরি ই), মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন (ক্যাটাগরি ই)।

বিদেশি:  কার্লোস ব্রেথওয়েট (উইন্ডিজ), কার্লোস ব্র্যাথওয়েট, ডাউইড মালান, আলী খান, জাহির খান (আফগানিস্তান, ক্যাটাগরি ডি), শারফেন রাদারফোর্ড (উইন্ডিজ, ক্যাটাগরি ই), লাসিথ মালিঙ্গা (শ্রীলঙ্কা, ক্যাটাগরি এ), ইয়াসির শাহ (পাকিস্তান), ব্রেন্ডন টেইলর (জিম্বাবুয়ে)।

রাজশাহী কিংস

দেশি: মুস্তাফিজুর রহমান (আইকন), মেহেদী হাসান মিরাজ, জাকির হাসান, মুমিনুল হক, সৌম্য সরকার (ক্যাটাগরি এ), ফজলে রাব্বি (ক্যাটাগরি বি), আরাফাত সানি (ক্যাটাগরি সি), আলাউদ্দিন বাবু (ক্যাটাগরি সি), মার্শাল আইয়ুব (ক্যাটাগরি সি), কামরুল ইসলাম রাব্বি (ক্যাটাগরি বি)।

বিদেশি: কায়েস আহমেদ, ক্রিশ্চিয়ান জঙ্কার, ইসুরু উদানা (শ্রীলঙ্কা, ক্যাটাগরি ই), লরি ইভেন্স (ইংল্যান্ড, ক্যাটাগরি ই), রায়ান টেন ডেসকাটে (নেদারল্যান্ডস, ক্যাটাগরি ডি), সেকুগে প্রসন্ন (শ্রীলঙ্কা), মোহাম্মদ সামি (পাকিস্তান)।

চিটাগং ভাইকিংস

দেশি: মুশফিকুর রহিম (আইকন), সানজামুল ইসলাম, মোসাদ্দেক হোসেন (ক্যাটাগরি এ), আবু জায়েদ রাহি (ক্যাটাগরি এ), সৈয়দ খালেদ আহমেদ (ক্যাটাগরি ডি), নাইম হাসান (ক্যাটাগরি ই), মোহাম্মদ আশরাফুল (ক্যাটাগরি বি), রবিউল হক (ক্যাটাগরি ই), ইয়াসির আলি চৌধুরী (ক্যাটাগরি সি), নিহাদুজ্জামান (ক্যাটাগরি সি) ও সালমান ইসলাম।

বিদেশি: সিকান্দার রাজা, লুক রঞ্চি, নাজিবউল্লাহ জাদরান, মোহাম্মদ শাহজাদ, রব্বি ফ্রাইলিঙ্ক, ক্যামরন ডেলপোর্ট (দক্ষিণ আফ্রিকা, ক্যাটাগরি ডি), দাসুন শানাকা (শ্রীলঙ্কা, ক্যাটাগরি ডি), নাজিবুল্লাহ জাদরান (আফগানিস্তান, ক্যাটাগরি এফ)।

এদিন মোট আটটি সেটে প্লেয়ার্স ড্রাফট অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে পাঁচটি সেট ছিল দেশি খেলোয়াড়দের জন্য। তিনটি সেট ছিল বিদেশি খেলোয়াড়দের জন্য। প্রতিটি সেটে দুইজন করে খেলোয়াড় দলে নেওয়ার সুযোগ ছিল।