‘অশ্লীল যুগের’ গল্পে পপির ‘কাটপিছ’

পপির জন্মদিনে ছবিটির পোস্টার ফেইসবুকে শেয়ার করে এ ঘোষণা দেন বুলবুল বিশ্বাস।

এ নির্মাতা বুধবার বলেন, “২০০১ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত অনেক ভালো ভালো চলচ্চিত্রের ভেতরও হঠাৎ অনাকাঙ্ক্ষিত দৃশ্য ঢুকে যেত। তখন পরিবার নিয়ে চলচ্চিত্র দেখা যেত না। আমরা তখন অনেক দর্শক হারিয়েছি। ওই সময়টাই তুলে আনতে চাই এ ছবিতে।”

প্রকাশিত পোস্টার নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে ফেইসবুকে। এতে আবেদনময়ী ভঙ্গিমায় দেখা গেছে পপিকে। পেছনে আরেক অভিনেতার দেখা মিললেও তার পরিচয় পাওয়া যায়নি এখনও।

‘অশ্লীল যুগ’ নিয়ে সিনেমা করতে গিয়ে ফের অশ্লীলতাকে উস্কে দিচ্ছেন কি না, এমন প্রশ্নও উঠেছে ফেইসবুকে।

বিষয়টি নিয়ে বুলবুল বলেন, “পোস্টার দেখে ফিল্মের সমালোচনা করাটা যায় না। শুধু বইয়ের মলাট দেখে ভেতর করা যায় না। আমরা আবেদনময়ী একটা ফিল আনার চেষ্টা করেছি। ওই সময়টাকে বোঝানোর জন্য পোস্টারটা করেছি। এটাতে নান্দনিকভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।”

এতে প্রধান চরিত্রের জন্য পপিকে নেওয়া হলেও বাকি শিল্পীদের এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

এ চরিত্রের জন্য পপিকে কেন বেছে নিলেন?

“তার মধ্যে ওই ইমেজটা আছে। ওই চেহারায় সাবলীলতা আছে। আঠারো বছর ধরে ক্যারিয়ার আছেন উনি। সবকিছু মিলিয়ে পপিকে পারফেক্ট মনে হয়েছে,” বলেন বুলবুল।

বিশ্বের অনেক চলচ্চিত্রে অশ্লীলতার বিরুদ্ধে কথা বলতে গিয়ে ঘুরে ফিরে সেই ছবিতেই অশ্লীলতার নজির দেখা গেছে অনেকবার।

সে ব্যাপারে নিজের সতর্কতার কথা জানিয়ে  এ নির্মাতা বলেন, “ছবিতে সম্পর্ক ও সংগ্রামের গল্প দেখাব। কোনো ভালগারিটি থাকবে না।”

চলতি বছরের শেষের দিকে ছবিটির শুটিং শুরু হবে বলে জানান নির্মাতা।