‘মিস বাগদাদ’ গুলিতে নিহত

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের রাস্তায় গুলিতে নিহত হয়েছেন ইরাকি মডেল, ফ্যাশন ব্লগার ও সাবেক ‘মিস বাগদাদ’ তারা ফারেজ। গাড়ি চালিয়ে যাওয়ার সময় ২২ বছর বয়সী এই তারকাকে গুলি করা হয় বলে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম টেলিগ্রাফের খবরে জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার গাড়ি চালানোর সময় ফারেজকে গুলি করেন দুবৃত্তরা।

ইন্ডিপেন্ডেন্টের খবরে বলা হয়েছে, ফারেজকে বাগদাদের শেখ জায়েদ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসকেরা জানান তার গায়ে অন্তত তিনটি গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

টেলিগ্রাফের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, দুঃসাহসী সব ছবি পোস্ট করার জন্য আলোচিত এই ইরাকি মডেলের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে ২৭ লাখ ফলোয়ার রয়েছে।

তারা ফারেজের হত্যার তদন্ত করছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। হত্যাকারীদের সম্পর্কে এখনো কিছু জানা না গেলেও ফারেজের ভক্ত ও অনুসারীদের ধারণা, ধর্মীয় মৌলবাদীরাই তাকে হত্যা করেছে। কারণ হিসেবে তারা বলছেন, ইরাকি নারীদের স্বাধীনতা কোনোভাবেই মৌলবাদীরা মেনে নিতে পারছে না।

ইরাকি কৌতুক অভিনেতা আহমেদ আল-বশির বলেছেন, ‘জগতের বেশির ভাগ মেয়ের মতো বেঁচে থাকতে চাওয়াকে যারা অন্যায় মনে করে, তারাও এই খুনের পৃষ্ঠপোষক।’

মডেল ফারেজ গুলিবিদ্ধ হওয়ার দুই দিন আগে বাগদাদের দক্ষিণ শহর বসরায় গুলিবিদ্ধ হন নারী অধিকারকর্মী সৌদ আল-আলী। এ ছাড়া ১৬ আগস্ট রহস্যজনকভাবে মারা যান ইরাকের রূপবিশেষজ্ঞ রাফিফ আল-ইয়াসেরি। এর এক সপ্তাহ পরে মারা যান আরেক রূপবিশেষজ্ঞ রাসা আল-হাসান।